বুধবার , ১ নভেম্বর ২০২৩ | ৩রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন ও আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. ঈশ্বরদী
  5. করোনাভাইরাস
  6. কৃষি
  7. ক্যাম্পাস
  8. খেলাধুলা
  9. গল্প ও কবিতা
  10. চাকরির খবর
  11. জাতীয়
  12. তথ্যপ্রযুক্তি
  13. তারুণ্য
  14. ধর্ম
  15. নির্বাচন

ঈশ্বরদীতে ছেলের জন্মদিনে বাবার রক্তদান

প্রতিবেদক
আমাদের ঈশ্বরদী রিপোর্ট :
নভেম্বর ১, ২০২৩ ১২:৩৮ অপরাহ্ণ

পাবনার ঈশ্বরদীর আকবরের মোড় এলাকার বাসিন্দা মোহাম্মদ শেখ তুষার। পেশায় তিনি একজন ক্ষুদ্র কাপড় ব্যবসায়ী। নিজের জন্মদিন, বিবাহবার্ষিকী, বাবা-মার জন্মদিনসহ বিশেষ বিশেষ দিন তিনি উদ্‌যাপন করেন স্বেচ্ছায় রক্তদান করে।

তুষার-সানজিদা দম্পতির একমাত্র সন্তান মোহাম্মদ ইব্রাহিম হাসান আদিয়াতের মঙ্গলবার (৩১ অক্টোবর) এক বছর পূর্ণ হয়েছে।

ছেলের প্রথম জন্মদিন একটু অন্যরকম করেই পালন করার কথা ভাবছিলেন বাবা শেখ তুষার। শেষে ঠিক করলেন বিগত সময়ের মতও আজকের দিনটাও রক্তদান করেই পার করবেন। তারই ধারাবাহিকতায় একজন রক্তশূন্যতায় আক্রান্ত রোগীকে রক্তদান করেছেন তিনি। একমাত্র সন্তানের জন্মদিনে রক্তদানের মত মহৎ কাজ যেন নাগরিক সমাজের কাছে নিঃসন্দেহে একটা নজির রাখল৷ তবে এখানেই শেষ নয়, স্বেচ্ছাসেবী হিসেবেও তার রয়েছে ব্যাপক পরিচিতি। তার এ এ ব্যাতিক্রমই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছে স্থানীয়রা।

জানা গেছে, উপজেলার কামিনী হাসপাতালে তিন দিন আগে রক্তশূন্যতা নিয়ে ভর্তি হন মোঃ টমাস বিশ্বাস(৭০) নামে এক বৃদ্ধ। অনেক জায়গাতে যোগাযোগ করেও রক্ত পাননি রোগীর স্বজনরা। ব্যাপারটি জানা মাত্র সন্তানকে কোলে করে এসে সেই রোগীকে রক্তদান করেন বাবা তুষার এবং রোগী ও তার স্বজনদের কাছে সন্তানের জন্য চান দোয়া। এ পর্যন্ত ২২ বার রক্তদান করেছেন বলে জানান শেখ তুষার। সব সময় নিয়োজিত থাকতে চান এমন স্বেচ্ছাসেবী কর্মকান্ডের সঙ্গে।

ছেলের জন্মদিনে রক্তদান করে দিনটি উদযাপন করার ব্যাপারে বাবা মোহাম্মদ শেখ তুষার বলেন, স্বেচ্ছায় রক্তদান একটি মানবিক কাজ। সব সময় মানবিক কাজে নিজেকে নিয়োজিত রাখার চেষ্টা করি। আর সেই চিন্তাধারা থেকেই মুলত আজকের এই উদ্যোগ। বিশেষ দিনগুলো রক্তদান করেই উদযাপন করেছি। তাই বিগত সময়ের মত এবারও একমাত্র সন্তানের প্রথম জন্মদিনটি উদযাপন করতে চাই রক্তদান করেই। এতে একজন মূমুর্ষ রোগীও রক্ত পেয়ে উপকৃত হবে। সবাই আমার সন্তানের জন্য দোয়া করবেন যেন তাকেও এমন স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে গড়ে তুলতে পারি।

রক্তগ্রহীতা টমাস বিশ্বাসের ছেলে সেন্টু বিশ্বাস জানান, আমার বাবা দীর্ঘদিন রক্তশূন্যতায় ভুগছেন। গত দুদিন যাবত হাসপাতালে ভর্তি। অনেক খোঁজাখুজি করে রক্ত সংগ্রহ করতে পারিনি। গতকাল রাতে হটাৎ করে তিনি ফোন করে রক্ত দিতে সম্মতি জানান। কিন্তু এখন শুনছি যে তার একমাত্র সন্তানের জন্মদিন উপলক্ষে রক্তদান করে জন্মদিন পালন করছে। সন্তানের জন্মদিনে বাবা রক্তদান করে সেই দিনটি উদযাপন করছে তা আমার জীবনের প্রথম দেখলাম। তার এ অনন্য উদ্যোগ সত্যিই প্রশংসার দাবিদার। দোয়া করি বাবার মত ছোট এই শিশুটিও যেন বড় হয়ে এমন স্বেচ্ছাসেবী ও মানবিক কাজ করতে পারে।

কামিনী হাসপাতালের দায়িত্বরত চিকিৎসক জয়শ্রী মন্ডল বলেন, রক্তদান করে ছেলের জন্মদিন উদযাপন করছে বাবা এরকম টা আগে কখনও দেখিনি। তবে এটা খুবই ভালো উদ্যোগ। অনেকেই ইচ্ছে করে রক্ত দিতে চাইনা কিন্তু তিনি তার একমাত্র সন্তানের জন্মদিন উপলক্ষে রক্তদান করছেন যা অন্যান্যদের রক্তদানে উৎসাহিত করবে। বিগত সময়েও তিনি একাধিকবার রক্তদান করেছেন। ভবিষ্যতেও তিনি এবং তার সন্তান যেন এরকম মানবিক কাজে নিজেকে নিয়োজিত রাখতে পারে তার জন্য দোয়া রইলো।

সর্বশেষ - ঈশ্বরদী

error: Content is protected !!