রবিবার , ৫ নভেম্বর ২০২৩ | ৩রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন ও আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. ঈশ্বরদী
  5. করোনাভাইরাস
  6. কৃষি
  7. ক্যাম্পাস
  8. খেলাধুলা
  9. গল্প ও কবিতা
  10. চাকরির খবর
  11. জাতীয়
  12. তথ্যপ্রযুক্তি
  13. তারুণ্য
  14. ধর্ম
  15. নির্বাচন

বিএনপি নেতার অফিস ভাংচুর
ঈশ্বরদীতে মুহুর্মুহু বোমা বিস্ফোরণ, ট্রাক ভাঙচুর ও রেললাইনে আগুন

প্রতিবেদক
বার্তা কক্ষ
নভেম্বর ৫, ২০২৩ ৯:০৩ অপরাহ্ণ

ঈশ্বরদীতে বিএনপি-জামায়াতের ডাকা দ্বিতীয় ধাপের অবরোধের প্রথম দিনে রেলগেট এলাকায় মুহুর্মুুহু বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। রোববার (৫ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে ঈশ্বরদী রেলগেট এলাকায় পরপর ৬টি বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।

এ সময় ১টি ট্রাক ভাঙচুর ও রেললাইনের ওপর অগ্নিসংযোগের করা হয়।

জানা যায়, অবরোধের সমর্থনে বিএনপির ২০-২৫ জন যুবক রেলগেটে এসে পরপর ৬টি ককটেল নিক্ষেপ করে। এরপর রেল লাইনের ওপর আগুন জ্বালিয়ে অবরোধের সমর্থনে শ্লোগান দেয়। রেলগেটের কাছে একটি ট্রাকের হামলা চালিয়ে সামনে গ্লাস ভাঙচুর করে। বিকট শব্দে পর পর ককটেল বিস্ফোরিত হলে লোকজন আতঙ্কিত হয়ে পড়ে। মুহূর্তেই রেলগেট থেকে শুরু করে বাজার এবং শহরের প্রধান প্রধান সড়কের সকল দোকানপাট ও যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এ সময় প্রাণভয়ে সাধারণ মানুষ ছোটাছুটি শুরু করে।

রিকশাচালক আলী হোসেন বলেন, ২০-২৫ জন যুবক রেলগেটে এসে পরপর ৬টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। আশপাশ থেকে নারিকেলে ছোঁবড়া, কাগজ ও পলিথিন জড়ো করে রেললাইনে আগুন জ্বালিয়ে দেয়।

এ ঘটনায় রেলগেটে পশ্চিমপাশে পৌর বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া পিন্টুর ব্যক্তিগত কার্যালয় ও উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য সচিব মেহেদি হাসানের কার্যালয় ভাঙচুর করে। তবে এসব ঘটনায় হতাহতের কোন খবর পাওয়া যায়নি।

জাকারিয়া পিন্টু পাবনার ঈশ্বরদী রেলস্টেশনে ১৯৯৪ সালে তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ট্রেনবহরে গুলি ও বোমা হামলা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি। ২০১৯ সালে মৃত্যুদণ্ডের আদেশের পর তিন বছর কক্সবাজারের টেকনাফে আত্মগোপনে থাকা অবস্থায় গত বছরের জুনে তাকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। পিন্টু ঈশ্বরদী পৌর বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও তৎকালীন ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। পৌরসভা নির্বাচনে পিন্টু মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন।

এর পরপরই বিজিবি, উপজেলা প্রশাসন, জেলা ও স্থানীয় পুলিশ বিভাগের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে আসেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুবীর কুমার দাশ বলেন, পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে। বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।

পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম, ঈশ্বরদী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বিপ্লব কুমার গোস্বামী এবং থানার ওসি অরবিন্দ সরকারসহ বিপুল সংখ্যক পুলিশ ঘটনাস্থলে অবস্থান নিয়েছেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মেয়র আবুল কালাম আজাদ মিন্টু বলেন, ধ্বংসাত্মক রাজনীতির অংশ হিসেবে অগ্নিসন্ত্রাসীরা চোরের মতো ককটেল ফাটিয়ে জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি করার চেষ্টা করছে।

সর্বশেষ - ঈশ্বরদী

আপনার জন্য নির্বাচিত
error: Content is protected !!