বুধবার , ১১ অক্টোবর ২০২৩ | ৩রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন ও আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. ঈশ্বরদী
  5. করোনাভাইরাস
  6. কৃষি
  7. ক্যাম্পাস
  8. খেলাধুলা
  9. গল্প ও কবিতা
  10. চাকরির খবর
  11. জাতীয়
  12. তথ্যপ্রযুক্তি
  13. তারুণ্য
  14. ধর্ম
  15. নির্বাচন

আ.লীগ একটানা ১৫ বছর ক্ষমতায় থাকার সুফল পাচ্ছে মানুষ: ফিরোজ কবির এমপি

প্রতিবেদক
পাবনা প্রতিনিধি :
অক্টোবর ১১, ২০২৩ ৬:৩২ অপরাহ্ণ

পাবনা-২ আসনের সংসদ সদস্য ও পাবনা জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আহমেদ ফিরোজ কবির বলেছেন, ‘আওয়ামীলীগ এই দেশ স্বাধীন করেছিল। তাই আওয়ামীলীগ এদেশের মানুষের কথা চিন্তা করে, দেশের উন্নয়নের কথা ভাবে। আজকে যত উন্নয়ন দেখছেন এসব গত ১৫ বছরে হয়েছে। বিগত একটানা ১৫ বছর আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় থাকার সুফল পাচ্ছে মানুষ। যেকারণে মানুষ শান্তিতে রয়েছে। এই যে শান্তিতে থাকা কেবল আওয়ামীলীগ সরকারের আমলেই সম্ভব।’

বুধবার (১১ অক্টোবর) বেলা ১১টায় পাবনার সুজানগরে সামাজিক সুরক্ষার আওতায় সুবিধাভোগীদের নিয়ে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

ফিরোজ কবির এমপি বলেন, ‘আপনার ভাল কিসে হয়, আপনার স্বার্থ কিসে সংরক্ষিত হয়, এটা আপনাকে বুঝতে হবে। প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আপনাদের কথা চিন্তা করে, আপনারা যাতে ঠিকমতো তিনবেলা খেতে পারেন, মাথার ওপর ছাদ থাকে, অসুখ বিসুখে ওষুধ কিনতে পারেন, তার সব ব্যবস্থা নিয়েছেন। উদাহরণ স্বরুপ বলা যায়, মাতৃত্বকালীন ভাতা শুধু হাটখালী ইউনিয়নে দেয়া হচ্ছে ৩৯ লাখ ১৭ সহাজার ৩৫২ টাকা। আর সুজানগর উপজেলায় এই ভাতা দেয়া হয় ২ কোটি ৬২ লাখ টাকা। ২০০৬ সালে বাংলাদেশের মানুষের জন্য ভাতা বাবদ খরচ করা হতো ২ হাজার ৫০৫ কোটি টাকা। আর বর্তমান সরকার বাংলাদেশের মানুষের পেছনে ভাতা বাবদ খরচ করছে ১ লাখ ২৬ হাজার কোটি টাকা। তাহলে আপনাদের জন্য এসব সুযোগ সুবিধা এই সরকার কি জন্য তৈরী করেছে। এটা ভাবতে হবে। তাই ভাল থাকতে হলে, উন্নয়ন চাইলে আগামীতে নৌকায় ভোট দেবার কোনো বিকল্প নেই।’

সুজানগর উপজেলার হাটখালী ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে স্থানীয় কামালপুর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, সুজানগর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীনুজ্জামান শাহীন, পৌর মেয়র রেজাউল করিম রেজা, হাটখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফিরোজ আহম্মেদ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সুজানগর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীনুজ্জামান শাহীন বলেন, বিএনপি সরকারের শাসনামলে এই হাটখালীতে নুরুল মাস্টার, আনিসুর মাস্টারকে হত্যা করা হয়েছিল, বিনপির জামাতের সস্ত্রাসীরা হাটখালীবাসীর উপর অরাজকতা চালিয়েছিল। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর একজন মানুষও এখানে হত্যার শিকার হয়নি, হয়রানীর শিকার হয়নি। এই সরকার বিভিন্ন ভাতা প্রদানের মাধ্যমে সাধারণ মানুষের জন্য সামাজিক নিরাপত্তা দিয়েছে। আগামী ২৪ সালের নির্বাচনে যদি আপনারা ভুল করেন তাহলে বিএনপি জামাত আবারও মানুষকে জিম্মি করবে। সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করবে। সকল ভাতা বাতিল করবে। যদি তা না চান তাহলে আপনাদের সজাগ থাকতে হবে। নৌকার বিকল্প নেই। নৌকায় ভোট দিলে শান্তি পাবেন। এলাকার উন্নয়ন হবে। সামাজিক সুরক্ষা নিশ্চিত হবে। ইতিমধ্যে সুজানগর উপজেলায় সকল ভাতা শতভাগ নিশ্চিত করা হয়েছে।’

সুজানগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. তরিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা জিল্লুর রহমান। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রাফিউল ইসলাম, আমিনপুর থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি ইউসুফ আলী প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সুজানগর পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি ফেরদৌস আলম ফিরোজ।

অনুষ্ঠানে সমাজসেবা কর্তৃক বিভিন্ন রোগী ও স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার মধ্যে এককালীন অনুদানের চেক এবং ভিজিডি কর্মসূচীর চাউল ও ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে ঢেউটিন বিতরণ করা হয়।

সর্বশেষ - ঈশ্বরদী

error: Content is protected !!