শুক্রবার , ২১ জানুয়ারি ২০২২ | ১৩ই চৈত্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. ঈশ্বরদী
  4. করোনাভাইরাস
  5. ক্যাম্পাস
  6. খেলাধুলা
  7. গল্প ও কবিতা
  8. জাতীয়
  9. তথ্যপ্রযুক্তি
  10. তারুণ্য
  11. দাশুড়িয়া
  12. ধর্ম
  13. নির্বাচন
  14. পাকশী
  15. পাবনা

শনাক্ত সাড়ে ১০ হাজার ছাড়াল

প্রতিবেদক
বার্তা কক্ষ
জানুয়ারি ২১, ২০২২ ১২:১৫ অপরাহ্ণ
শনাক্ত সাড়ে ১০ হাজার ছাড়াল

দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্তের সংখ্যা এবং নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার বছরের শুরু থেকে প্রতিদিনই বাড়ছে। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় (গত বুধবার সকাল ৮টা থেকে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা) শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১০ হাজার ৮৮৮ জনে পৌঁছেছে। এ সময় করোনায় মৃত্যু হয়েছে চারজনের। নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে রোগী শনাক্তের হার ২৬.৪৭ শতাংশ।

এক দিনের ব্যবধানে নতুন রোগী বেড়েছে এক হাজার ৩৮৫ জন।
গতকাল স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর এক দিনে সর্বোচ্চ ১৬ হাজার ২৩০ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয় গত বছরের ২৮ জুলাই।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া চারজনসহ দেশে এ পর্যন্ত করোনায় প্রাণ হারিয়েছে ২৮ হাজার ১৮০ জন। আর সর্বশেষ ১০ হাজার ৮৮৮ জনসহ মোট শনাক্ত হয়েছে ১৬ লাখ ৫৩ হাজার ১৮২ জন। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছে ৫৭৭ জন এবং মোট সুস্থ হয়েছে ১৫ লাখ ৫৪ হাজার ৮৪৫ জন।

সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় মৃতদের মধ্যে একজন পুরুষ ও তিনজন নারী। এর মধ্যে ৬১ থেকে ৭০ বছর বয়সী একজন, ৫১ থেকে ৬০ বছর বয়সী একজন, ৩১ থেকে ৪০ বছর বয়সী একজন এবং ২১ থেকে ৩০ বছর বয়সী একজন। এই চারজনের দুজন ঢাকা বিভাগের এবং দুজন চট্টগ্রাম বিভাগের। তাঁরা সবাই সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

চট্টগ্রামে ৮ জনের ওমিক্রন শনাক্ত : এদিকে ঢাকা ও যশোরের পর চট্টগ্রামেও পাওয়া গেছে করোনার নতুন ভেরিয়েন্ট ওমিক্রনের অস্তিত্ব। দেশে ৫৫ জনের নমুনায় ওমিক্রন শনাক্ত হওয়ার পর সর্বশেষ আরো আটজনের নমুনায় তা পাওয়া গেছে। এই আটজনের সবাই চট্টগ্রামের। গতকাল জার্মানির গ্লোবাল ইনিশিয়েটিভ অন শেয়ারিং অল ইনফ্লুয়েঞ্জা ডাটায় (জিআইএসএআইডি) এই তথ্য আপলোড করা হয়েছে। সর্বশেষ এই আটজনের তথ্য দিয়েছে আইসিডিডিআরবি। তাদের নমুনা গত ২৮ ডিসেম্বর থেকে ৮ জানুয়ারির মধ্যে সংগ্রহ করা হয়। শনাক্তদের মধ্যে পাঁচজন পুরুষ ও তিনজন নারী। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত দেশে ৭১ জনের ওমিক্রন সংক্রমণের তথ্য পাওয়া গেল।

তবে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের ধারণা, করোনাভাইরাসের নতুন ধরন দ্রুতগতির ওমিক্রনের কারণেই করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রীও কিছুদিন থেকে এ কথা বলে আসছেন। গত ১২ জানুয়ারি তিনি বলেন, দেশে করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনের সামাজিক সংক্রমণ শুরু হয়ে গেছে। দেশে এখন ১৫ থেকে ২০ শতাংশ করোনা রোগীই ওমিক্রনে আক্রান্ত। কিন্তু কিভাবে এ বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া গেছে, সে সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যায়নি। ওই দিনই স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বুলেটিনে অধিদপ্তরের মুখপাত্র অধ্যাপক ডা. মো. রোবেদ আমিন বলেন, সংক্রমণ হঠাৎ করে মাত্রাতিরিক্ত হয়ে গেলে ধরে নিতে হবে নতুন ভেরিয়েন্টেই তা হচ্ছে। গত ১৭ জানুয়ারি স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা ঢাকায় যে নমুনা পরীক্ষা করেছি, জিনোম সিকোয়েন্স করেছি, তাতে দেখা গেছে ওমিক্রন (আক্রান্তের) এখন ৬৯ শতাংশে উন্নীত হয়েছে, যেটি আগে ১৩ শতাংশ ছিল। আমরা গত ১০ দিনের মধ্যেই এই তথ্য পেয়েছি। আমরা মনে করি, ঢাকার বাইরেও একই হার হবে। ’

দেশে জনসনের এক ডোজের টিকা : গতকাল সকালে দেশে প্রথমবারের মতো এসেছে জনসন অ্যান্ড জনসনের তিন লাখ ৩৬ হাজার ডোজ করোনা প্রতিরোধী এক ডোজের টিকা। এই টিকা রেফ্রিজারেটরের স্বাভাবিক তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করা যায়। যুক্তরাষ্ট্র থেকে কোভ্যাক্সের মাধ্যমে এই টিকা পেয়েছে বাংলাদেশ। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ভ্যাকসিন ডেপ্লয়মেন্ট কমিটির সদস্যসচিব ডা. শামসুল হক গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এর আগে বাংলাদেশে যত টিকা দেওয়া হয়েছে বা হচ্ছে, তার সবগুলোই দুই ডোজের।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী যা বললেন : স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক গতকাল রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে জেলা প্রশাসক সম্মেলনের একটি অধিবেশন শেষে সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা জেলা প্রশাসকদের বলেছি, আপনারা গতবার যেভাবে করোনা নিয়ন্ত্রণে সহযোগিতা করেছেন, এবারও সেটা করতে হবে। যারা স্বাস্থ্যবিধি মানবে না তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে হবে। ’

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরো বলেন, ‘দেশকে অর্থনৈতিক ও সামাজিকভাবে ভালো রাখতে হলে অবশ্যই করোনার লাগাম টেনে ধরতে হবে। আমরা স্বাস্থ্য বিভাগ প্রস্তুত আছি। টেস্টের কোনো অভাব নেই, ৮০০ ল্যাব আছে। আমাদের কিট আছে, অক্সিজেনের অভাব নেই; প্রায় ৮৩০টি হাসপাতালে অক্সিজেন কনসেনট্রেটর স্থাপন করা হয়েছে, যা আগে ছিল না। ২০ হাজার বেড আছে। ৪০ হাজারের মতো নতুন লোক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। ১৫ হাজারের মতো ডাক্তার ও ২০ হাজার নার্স রয়েছেন।

সর্বশেষ - ঈশ্বরদী

আপনার জন্য নির্বাচিত
error: Content is protected !!