রেলের দুর্নীতির প্রতিবাদে ঈশ্বরদীতে মানাবের উদ্যোগে বিক্ষোভ

আমাদের ঈশ্বরদী রিপোর্টআমাদের ঈশ্বরদী রিপোর্ট
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১১:০৬ PM, ২১ জুলাই ২০২২
All-focus

বাংলাদেশ রেলওয়ের বিভিন্ন অব্যবস্থাপনা, অনিয়ম-দুর্নীতির প্রতিবাদে ঈশ্বরদী রেলওয়ে স্টেশনে মাদককে না বলুন মানাব উদ্যোগে বিক্ষোভ করেছেন বিভিন্ন কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও সামাজিক সংগঠনের কর্মীরা।

বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) দুপুর ১২টায় ঈশ্বরদী রেলওয়ে জংশন স্টেশনে এ বিক্ষোভ করেন তারা।

ইন্ডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটির (আইইউবি) শিক্ষার্থী আবির হোসেন বলেন, ঈশ্বরদীতে টিকিট কালোবাজারিদের দাপটে সাধারণ যাত্রীরা অসহায়। কাউন্টারে টিকিট কিনতে গেলে পাওয়া যায় না। কালোবাজারিদের কাছ থেকে শোভন আসনের ৩০০ টাকার টিকিট ৮০০ টাকা, এসির ৬০০ টাকার টিকিট ১ হাজার ৮০০ টাকায় কিনতে হয়।

ঢাকা স্টেট কলেজের অনার্স শেষবর্ষের ছাত্র শাহারিয়ার নাফিস স্মরণ বলেন, রেলের শহর ঈশ্বরদী। এখানে ট্রেনের টিকিট পাওয়া যায় না। কালোবাজারিদের দাপটে সাধারণ যাত্রীরা অসহায়। বাধ্য হয়ে টিকিটের নির্ধারিত দামের চেয়ে দুই থেকে তিনগুণ বেশি টাকা দিয়ে টিকিট কিনতে হয়।

ঈশ্বরদীর সামাজিক সংগঠন মাদককে না বলুন (মানাব) সভাপতি মাসুম পারভেজ কল্লোল বলেন, দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ঈশ্বরদীর ছেলেমেয়েরা পড়াশোনা করে। ঈদের ছুটিতে তারা বাড়িতে আসার সময় ট্রেনের টিকিট না পেয়ে হয়রানির শিকার হয়েছে। এখন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফিরে যাওয়ার সময় টিকিট পাচ্ছে না। অথচ কালোবাজারে বেশি টাকা দিলে টিকিট মিলছে। টিকিট কালোবাজারিসহ নানা দুনীতির সঙ্গে ট্রেনের কর্মচারী ও কর্মকর্তারা জড়িত। দুর্নীতিবাজ এসব কর্মচারী-কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে শিক্ষার্থী ও সামাজিক কর্মীরা ঐক্যবদ্ধ হয়েছে।

এসময় আবির হাসান, বর্ষা, আরাফত জামান, আরাফাত জামান, শিবলি হাসান শাফি, জুবায়ের আলম নীরব, জিহাদুল আলম, ফারাবি আহমেদ আনিক, তানজিদুর জামান, নুসরাত জাহান সূচনা, দেবাঞ্জন পাল, শিবলী হাসান মাফি, আরাবিন আহম্মেদ তানভীর, তাওসিফ হোসেন ও অপিসহ কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

 

আপনার মতামত লিখুন :