ঈশ্বরদীতে ক্ষুদ্র ঋণের দায়ে জেল হাজতে যাওয়া ৩৭ কৃষককে আর্থিক সহযোগিতা প্রদান

আমাদের ঈশ্বরদী রিপোর্টআমাদের ঈশ্বরদী রিপোর্ট
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৪:০৮ PM, ৩০ নভেম্বর ২০২২

পাবনা-৪ (ঈশ্বরদী-আটঘড়িয়া) আসনের সংসদ সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা নুরুজ্জামান বিশ্বাস বলেছেন, আওয়ামীলীগ সরকার কৃষি বান্ধব সরকার। আর দেশের সুনামধন্য শিল্পপ্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা গ্রুপ সরকারের সহযোদ্ধা ও অসহায় মানুষের বন্ধু। সর্বদা শুভ কাজে সবার পাশে থাকেন। তার দৃষ্টান্ত হচ্ছে সমবায় ব্যাংকের ক্ষুদ্র খেলাপি ঋণের দায়ে জেলহাজতে ঈশ্বরদীর ভাড়ইমারি গ্রামের ৩৭ কৃষককে আইনি সহযোগিতার মাধ্যমে জামিনে ছাড়িয়ে আনা। ব্যাংকের ঋণ পরিশোধের দায়িত্ব নেওয়া। এমনকি ৩৭জন ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষককে এক মাসের খাদ্য সহায়তা বাবদ র আর্থিক সহযোগিতা। এটা বসুন্ধরা গ্রæপের এমডি ও চেয়ারম্যানের উদার ও মানবিক গুণের পরিচয়।

বুধবার (৩০ নভেম্বর ) সকালে ঈশ্বরদীর সলিমপুরের ভাড়ইমারি বটতলা মোড়ে শুভ সংঘ ঈশ্বরদী শাখার সভাপতি মাসুম পারভেজ কল্লোলের সভাপতিত্বে বসুন্ধরা গ্রুপ কর্তৃক কৃষকদের এক মাসের খাদ্য সহায়তা বাবদ আর্থিক সহায়তা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্যকালে এমপি নুরুজ্জামান বিশ্বাস এসব কথা বলেন।
দৈনিক কালের কন্ঠের ঈশ্বরদী প্রতিনিধি ও শুভ সংঘ ঈশ্বরদী শাখার প্রধান উপদেষ্টা শেখ মেহেদী হাসানের সঞ্চালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে এমপি নুরুজ্জামান বিশ্বাস আরো বলেন, আমি দূঃখ, ভারাক্রান্ত হৃদয়ে আপনাদের সামনে এসেছি। কারণ অল্প ঋণের দায়ের আপনারা গ্রেফতার হয়ে জেল হাজতে গিয়েছেন। বর্তমান সরকারের আমলে এটা খুবই দূঃখ জনক। অনাকাঙ্খিত একটা ঘটনা। কারণ বর্তমান সরকার কৃষি বান্ধব সরকার। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সঠিক সময়ে কৃষকদের দোয়ারে সার, কিটনাষৌধ ও বীজ পৌছে দেওয়া হয়। স্বল্প ঋণের দায়ের কৃষকদের জেলে যাওয়ার ঘটনায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। এই জন্য আমরা গভীর দূঃখ প্রকাশ করছি। কারণ কৃষক বিএনপি-জামায়াত সরকারের আমলে সার, বীজ ও কিটনাষৌধের জন্য গুলি খেয়েছে। প্রাণ দিয়েছে।
বসুন্ধরা গ্রুপকে সরকারের  উন্নয়নের সহযোদ্ধা হিসেবে উল্লেখ করে এমপি নুরুজ্জামান বিশ্বাস আরও বলেন, কৃষকদের জেল হাজত থেকে মুক্ত করতে যেভাবে বসুন্ধরা গ্রুপ এগিয়ে এসেছে, তেমনিভাবে সবজি চাষের প্রধান অঞ্চল ঈশ্বরদীতে একটি কৃষি প্রসেসিং সেন্টার নির্মাণ করে সকল কৃষককে সহযোগিতা করবেন।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ কৃষক উন্নয়ন সোসাইটি পাবনা জেলা শাখার সভাপতি ও ঈশ্বরদী পৌরসভার মেয়র ইছাহক আলী মালিথা বলেন, করোনার মহামারিতে যখন সারা বিশ্ব বিধ্বস্ত, উদ্বিগ্ন। তখন আমাদের প্রিয় নেত্রী প্রধান শেখ হাসিনা শক্ত হাতে পরিস্থিতি মোকাবেলা করে দেশ ও মানুষকে রক্ষা করেছেন। প্রধানমন্ত্রীর ডাকে সারা দিয়ে দেশের সুনামধন্য বসুন্ধরা গ্রুপ মানুষের মাঝে খাদ্যসহ করোনা প্রতিরোধক উপকরণ বিতরণ করে মানবতার পরিচয় দিয়েছে। এবার ঋণের দায়ে জেল হাজতে যাওয়া ৩৭ কৃষককে নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় আইনি সহযোগিতায় জামিনে মুক্ত করে এনেছে। বসুন্ধরা গ্রুপের এই ভালো কাজটি ঈশ্বরদীসহ সারা দেশের কৃষকের নিকট প্রশংসা অর্জন করেছে বলে আশা করি। তিনি আরও বলেন, বসুন্ধরা গ্রুপের দৈনিক কালের কন্ঠের পাঠক সংগঠন শুভ সংঘের মাধ্যমে দেশব্যাপী সব সময়ই ভালো কাজ করছে।
বাংলাদেশ কৃষক উন্নয়ন সোসাইটি কেন্দ্রিয় কমিটির সভাপতি কৃষিতে বঙ্গবন্ধু পদক প্রাপ্ত কৃষক সিদ্দিকুর রহমান কুল ময়েজ বলেন, সামান্য কিছু টাকার জন্য কৃষকদের বিরুদ্ধে মামলা। জেল হাজতে প্রেরণ করা। এটা বর্তমান সরকারের আমলে খুবই দুঃখজনক একটা ঘটনা। কারণ বর্তমান সরকার কৃষি বান্ধব সরকার। আমার দেশের রাজনৈতিক সংকোট, করোনা মহামারিসহ প্রাকৃতিক নানা দূর্যোগসহ কৃষি পণ্যে দাম না থাকায় প্রতিটি কৃষকই আর্থিকভাবে ক্ষতি গ্রস্থ হয়ে নিঃস্ব হয়ে পড়েছি। আমাদের যাদের ব্যাংক ঋণ রয়েছে তাদের বিষয়টি সরকার দৃষ্টি দেবেন। তিনি আরও বলেন, সামান্য ২/৪ শত টাকা খেলাপি হওয়ায় কৃষকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। যে মামলায় কৃষকরা জেল হাজতে গিয়েছিলো। ঋণের বোঝা নিয়ে শংকায় ছিলো। সেই শংকা বসুন্ধরা গ্রুপ দুর করেছে। এই জন্য সারা বাংলাদেশের কৃষকদের পক্ষ থেকে বসুন্ধরা গ্রæপের এমডি, চেয়ারম্যানকে ধন্যবাদ পত্র প্রদান করবো। আশা করি বসুন্ধরা গ্রুপ সর্বদা কৃষকের পাশে থাকবে।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে কৃষিতে বিশেষ সম্মানিত পদক (এআইপি) প্রাপ্ত কৃষক নুরুন্নাহার বেগম, বাংলাদেশ কৃষক উন্নয়ন সোসাইটি কেন্দ্রিয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক প্যানেল মেয়র আবুল হাশেম,শুভ সংঘের কেন্দ্রিয় কমিটির সদস্য আলী আকবর রাজু, পাবনা জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল আলম ফারুখ, কৃষকদের পক্ষে আতিয়ার রহমান, মহির উদ্দিন মেম্বর প্রমুখ বক্তব্য দেন।
এছাড়া বসুন্ধরা গ্রুপের দৈনিক কালের কন্ঠের পাবনা জেলা প্রতিনিধি ও শুভ সংঘের উপদেষ্টা প্রবীর সাহা, নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকমের পাবনা প্রতিনিধি জ্যেষ্ট সাংবাদিক আহমেদুল হক রানা, বাংলা নিউজ টুয়েন্টিরফোর ডটকম ঈশ্বরদী প্রতিনিধি টিপু সুলতান এবং দৈনিক কালের কন্ঠের ঈশ্বরদী প্রতিনিধি ও শুভ সংঘের প্রধান উপদেষ্টা শেখ মেহেদী হাসান, শুভ সংঘ পাবনা জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক গোলাম কিবরিয়া, ঈশ্বরদী শাখার সহ সভাপতি আশিকুল ইসলাম পিয়াস, সাধারণ সম্পাদক সাদিকুল ইসলাম রাসেল, নারী বিষয়ক সম্পাদক ফারজানা ফেরদৌস পুষ্প, নুসরাত জাহান, সরণসহ শুভ সংঘের ঈশ্বরদী ও পাবনা জেলা কমিটির সদস্যসহ কৃষক নেতাসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, ঋণ খেলাপির দায়ে জেল হাজত থেকে জামিনে মুক্তি পাওয়া ৩৭ জন কৃষক ও তাদের পরিবারকে ৫ হাজার টাকা করে মোট এক লাখ ৮৫ হাজার টাকা বসুন্ধরা গ্রুপের পক্ষ থেকে খাদ্য সহায়তা হিসেবে প্রদান করা হয়।

আপনার মতামত লিখুন :